JAFB | Journalist Alliance Foundation of Bangladesh
ফোকাস নিউজ রাজনীতি

ধাক্কা ও টোকা দিয়ে ক্ষমতা থেকে ফেলতে চাই না : মির্জা আব্বাস

বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য মির্জা আব্বাস বলেন, ‘এই সরকারকে টোকা দিয়ে ফেলতে চাই না। সঠিক নির্বাচনের মধ্য দিয়ে এই সরকারের পতন ঘটাতে চাই। তত্ত্বাবধায়ক সরকারের অধীন নিরপেক্ষ নির্বাচনের মাধ্যমে এই সরকারের বিদায় ঘটবে।’ আজ বুধবার ঢাকায় কেন্দ্রীয় গণ-অবস্থান কর্মসূচিতে বিশেষ অতিথির বক্তব্যে মির্জা আব্বাস এসব কথা বলেন।

মির্জা আব্বাস বলেন, ‘টোকা বা ধাক্কা দিয়ে এই সরকারকে ফেলতে চাই না। সরকার অযথা আতঙ্কে ভুগছে। কোনো বিশৃঙ্খলা ও অশান্তি বিএনপি চায় না। আপনারা উসকানি দেবেন না। তাহলে ফল ভালো হবে না। জোর করে ক্ষমতায় থাকার দিন শেষ। ১০ দফা মেনে নির্বাচনে আসেন। আপনারা জিতলেও আপত্তি নেই।’

বিএনপির কারাবন্দী নেতা–কর্মীদের মুক্তি দাবি করে বিএনপির স্থায়ী কমিটির এই সদস্য বলেন, জেলখানায় আর জায়গা নেই। রাজনৈতিক কর্মীদের বন্দী করে রাখা হয়েছে। দুজনের সেলে সাত–আটজন করে রাখা হচ্ছে। বিএনপির নেতাদের জেলে ভরে, মামলা দিয়ে, গুম–খুন করে ১৫ বছর ধরে ক্ষমতায় টিকে আছে এই সরকার।

গত ১০ ডিসেম্বরে গণসমাবেশের দুই দিন আগে গ্রেপ্তার হন মির্জা আব্বাস। গ্রেপ্তার হওয়া নিয়ে আফসোস নেই উল্লেখ করে তিনি সমাবেশে বলেন, ‘গণসমাবেশের প্রস্তুতি শেষ করে বাড়িতে ফিরে গ্রেপ্তার হই। আফসোস নেই, দুঃখ নেই। যখন শুনেছি গোলাপবাগে স্মরণকালের সবচেয়ে বড় সমাবেশ হয়েছে। সমাবেশের জায়গা ঘোষণার আধা ঘণ্টার মধ্যে সমাবেশস্থল ভরে গেছে।’

সমাবেশ থেকে নেতা–কর্মীদের সরকার পতনের এক দফা আন্দোলনের প্রস্তুতি নিতে বলেন বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান এ জেড এম জাহিদ হোসেন। তিনি বলেন, সরকারি দলের নেতারা মঞ্চ ভেঙে পড়েছেন, এই সরকারও কাচের মতো ভেঙে পড়বে। গণঐক্য তৈরি করতে হবে। সেখান থেকেই হবে গণ–অভ্যুথান।

বিএনপির ঢাকা মহানগর উত্তরের আহ্বায়ক আমানউল্লাহ আমান বলেন, সরকারের শুভবুদ্ধির উদয় হলে পদত্যাগ করবে। তা না হলে জনগণ সংসদ ভবন থেকে সংসদ সদস্যদের বের করে আনবে। সচিবালয় থেকে মন্ত্রীদের বের করে আনবে। গণভবন থেকে শেখ হাসিনাকেও বের করে আনবে।

বিএনপি আজ ঢাকাসহ ১০টি বিভাগীয় শহরে (সাংগঠনিক বিভাগ) গণ-অবস্থান কর্মসূচি দিয়েছে। ঢাকার নয়াপল্টনে সকাল সাড়ে ১০টায় কেন্দ্রীয় কর্মসূচি শুরু হয়৷ বর্তমান সরকারের পদত্যাগ, সংসদ বিলুপ্ত করা ও নির্দলীয় তত্ত্বাবধায়ক সরকারের অধীন নির্বাচনসহ ১০ দফা দাবিতে বিএনপির নেতৃত্বে বিভিন্ন দল ও জোট ডিসেম্বর থেকে যুগপৎ আন্দোলন শুরু করেছে। আজকের গণ-অবস্থান ছিল তাদের দ্বিতীয় যুগপৎ কর্মসূচি। বেলা আড়াইটায় মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরের বক্তব্যের মধ্য দিয়ে কর্মসূচি শেষ হয়।

১৬ জানুয়ারি দেশব্যাপী বিক্ষোভ সমাবেশ ও মিছিলের যুগপৎ কর্মসূচি ঘোষণা করেন বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর। বর্তমান সরকারের পদত্যাগ, সংসদ বিলুপ্ত করা ও নির্দলীয় তত্ত্বাবধায়ক সরকারের অধীন নির্বাচনসহ ১০ দফা দাবির পাশাপাশি গ্রাহক পর্যায়ে বিদ্যুতের দাম ১৫ শতাংশ বৃদ্ধির সরকারি উদ্যোগের প্রতিবাদে এ সমাবেশ হবে।

এই সংক্রান্ত আরও খবর

প্রবীণ সাংবাদিক শাহজাহান মিয়ার মৃত্যুতে বাসাজ’র শোক

Shahadat Hossen

মাসে ১০ কোটি করে পদ্মার বকেয়া পরিশোধে রাজি বিমান

Shahadat Hossen

আফগানিস্তানফেরত ফখরুল হাল ধরেন হুজির, ছিল বড় হামলার পরিকল্পনা

Shahadat Hossen

ট্রেনে কাটা পড়ে মা-মেয়ের মৃত্যু

Shahadat Hossen

কুমিল্লায় ডাকাত সন্দেহে গণপিটুনিতে দুজনের মৃত্যু

Shahadat Hossen

মহারাষ্ট্রে বাস-ট্রাক সংঘর্ষে নিহত ১১

Shahadat Hossen

Leave a Comment